সোমবার | ৪ঠা মার্চ, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ২০শে ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম
শ্রীমঙ্গলের সেন্ট মার্থাস উচ্চ বিদ্যালয়ের বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা ও পুরস্কার বিতরনী ফুলতলা ইউনিয়নে আইনশৃঙ্খলা সভা অনুষ্ঠিত মৌলভীবাজারে একতা যুব সংস্থার তাফসিরুল কোরআন মাহফিল ৩০ জানুয়ারি শীতার্ত মানুষের কল্যাণে স্টুডেন্ট ওয়েলফেয়ার সোসাইটির শীতবস্ত্র বিতরণ ‘বলাই-সজীব ভাই-ভাই, এক দড়িতে ফাঁসি চাই’ কুশিয়ারা পাড়ের ঐতিহ্যবাহী পৌষ সংক্রান্তির মাছের মেলা অদক্ষ চালক কেড়ে নিল প্রাণ; নতুন বই নিয়ে বাড়ি ফিরা হল না খাদিজার কুলাউড়ায় ঐতিহ্যবাহী ‘মাছের মেলা’ নবনির্বাচিত কৃষিমন্ত্রীকে ফুলেল শুভেচ্ছা দিয়েছে জেলা আওয়ামিলীগ শ্রীমঙ্গলে হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের উদ্যোগে ত্রিপুরা পল্লীতে শীতবস্ত্র বিতরন

‘বলাই-সজীব ভাই-ভাই, এক দড়িতে ফাঁসি চাই’

দেলাওয়ার হোসেন, জুড়ী
প্রকাশিত: মঙ্গলবার, ১৬ জানুয়ারি, ২০২৪, ৭:০৭ পূর্বাহ্ণ
'বলাই-সজীব ভাই-ভাই, এক দড়িতে ফাঁসি চাই'

মৌলভীবাজার জেলার জুড়ীতে বেপরোয়া মাইক্রোবাসের ধাক্কায় এক ছাত্রী নিহতের ঘটনায় দায়ীদের ফাঁসির দাবিতে ফুঁসে উঠেছে তার সহপাঠীসহ এলাকাবাসী। ঘাতক চালকসহ দায়ীদের গ্রেফতারের দাবিতে মঙ্গলবার সকাল ১১ টার দিকে এলাকাবাসী ও নিহত ছাত্রীর সহপাঠীরা উপজেলার ফুলতলা ইউনিয়নের রাঘনা বটুলী উচ্চ বিদ্যালয়ের সামনে থেকে প্রতিবাদ মিছিল বের করে ফুলতলা ইউনিয়ন পরিষদের সামনে গিয়ে দুই ঘন্টা জুড়ী-ফুলতলা আঞ্চলিক মহাসড়ক অবরোধ করে রাখে। এ সময় ঘাতক ও তার সহযোগীদের অবিলম্বে গ্রেফতার করে শাস্তি নিশ্চিত না করলে আরো কঠোর আন্দোলনের হুমকি দেন এলাকাবাসীসহ খাদিজার সহপাঠীরা। ‘এক দফা এক দাবি, ঘাতক চালকের ফাঁসি’, ‘বলাই-সজীব ভাই-ভাই, এক দড়িতে ফাঁসি চাই’, ‘খুনিরা কোথায় গেল, প্রশাসন জবাব চাই’ সহ বিভিন্ন স্লোগান দিয়ে ছাত্র-ছাত্রীরা সড়ক অবরোধ ও টায়ার পুড়িয়ে বিক্ষোভ করেছে। রবিবার (১৪ জানুয়ারি) বিকাল থেকে শিক্ষার্থীরা দফায় দফায় বিক্ষোভ করছে।

ছাত্রদের সড়ক অবরোধ ও বিক্ষোভ মিছিলের পর ফুলতলা বশির উল্লাহ উচ্চ বিদ্যালয়ের সামনে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। মানববন্ধনে রাঘনা উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থী ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন ফুলতলা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল আলীম শেলু, প্যানেল চেয়ারম্যান দছির উদ্দিন, ইউপি সদস্য ইমতিয়াজ গফুর মারুফ, ইউপি স্বপন মল্লিক, ফুলতলা বশির উল্লাহ উচ্চ বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক আরমান আলী, ফুলতলা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক তাজুল ইসলাম, ফুলতলা বাজার বণিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক জামাল উদ্দিন সেলিম, রাঘনা বটুলী উচ্চ বিদ্যালয়ের সভাপতি নাজমুল আলম লিজন, নিসচা উপজেলা শাখার সভাপতি সাইফুল ইসলামসহ বিভিন্ন স্কুল-কলেজের শিক্ষক-শিক্ষার্থী, বিভিন্ন পেশাজীবি, গণমাধ্যমকর্মী ও হাজার হাজার সাধারণ মানুষ। মানববন্ধনে বক্তারা দোষীদের দ্রুত আইনের আওতায় এনে শাস্তি নিশ্চিত করার আহবান জানান এবং শিক্ষার্থীদের যৌক্তিক আন্দোলনে একাত্মতা পোষণ করেন।

নিহত ছাত্রী খাদিজা আক্তার সুলতানা (১১) উপজেলার রাঘনা বটুলী উচ্চ বিদ্যালয়ের সপ্তম শ্রেণীর শিক্ষার্থী। সে ফুলতলা ইউনিয়নের বিরইনতলা গ্রামের আব্দুল জলিল মিয়ার মেয়ে। এ ঘটনায় একই বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণীর কুলসুমা বেগম (১৪) নামে আরেক শিক্ষার্থী আহত হয়েছেন। রবিবার (১৪ জানুয়ারি) দুপুর দেড়টার দিকে উপজেলার ফুলতলা ইউনিয়নের বটুলী এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

এদিকে বেপরোয়া মাইক্রোবাসের ধাক্কায় রাঘনা বটুলী উচ্চ বিদ্যালয়ের ছাত্রী নিহতের ঘটনায় ঐ ছাত্রীর বাবা বাদী হয়ে তিন জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে। মামলার বিষয়টি মঙ্গলবার নিশ্চিত করেছেন জুড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এসএম মাইন উদ্দিন।

জানা যায়, গত রবিবার উপজেলার ফুলতলা ইউনিয়নের রাঘনা বটুলী উচ্চ বিদ্যালয়ের সপ্তম শ্রেণীর শিক্ষার্থী খাদিজা আক্তার সুলতানা (১১) ও নবম শ্রেণীর কুলসুমা বেগম (১৪) সকালে বিদ্যালয়ে যান ভর্তি হতে। ভর্তি শেষে নতুন বই নিয়ে বাড়ী ফেরার পথে বিদ্যালয়ের সামনের ফুলতলা-বটুলী আঞ্চলিক মহাসড়কে বেপরোয়া মাইক্রোবাসের ধাক্কায় দুজন শিক্ষার্থী সড়ক থেকে পাশের খাদে ছিটকে পড়ে। দুর্ঘটনার পর খাদিজা আক্তার সুলতানা ও কুলসুমা বেগম বেশ কিছু সময় সড়কের পাশের খাদে পড়েছিল। পরে আশেপাশের লোকজন তাদেরকে উদ্ধার করে জুড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এ নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক খাদিজাকে মৃত ঘোষণা করেন এবং আহত কুলসুমাকে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন। ময়নাতদন্তের পর সোমবার বিকেল ৫ টার দিকে বিরইনতলা ঈদগাহ ময়দানে জানাজা শেষে খাদিজা সুলতানার লাশ দাফন করা হয়। ঘাতক গাড়িটির মালিক ফুলতলা বস্তির মৃত মরম আলীর ছেলে বলাই মিয়া। বলাই মিয়ার গাড়িটি তখন চালাচ্ছিল তার ভাতিজা ও ফখর উদ্দিনের ছেলে সজীব মিয়া(১৫)। ঘটনার পর থেকে বলাই ও সজীব পলাতক রয়েছে।

এ বিষয়ে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা থানার এসআই মোস্তফা কামাল বলেন, মাইক্রোবাসের ধাক্কায় ছাত্রী নিহতের ঘটনায় ঐ ছাত্রীর বাবা আব্দুল জলিল মিয়া বাদী হয়ে থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন।

জুড়ী থানার ওসি এসএম মাইন উদ্দিন বলেন, এ ঘটনায় জড়িতদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।


আরও পড়ুন
Hexus IELTS