সোমবার | ৪ঠা মার্চ, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ২০শে ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম
শ্রীমঙ্গলের সেন্ট মার্থাস উচ্চ বিদ্যালয়ের বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা ও পুরস্কার বিতরনী ফুলতলা ইউনিয়নে আইনশৃঙ্খলা সভা অনুষ্ঠিত মৌলভীবাজারে একতা যুব সংস্থার তাফসিরুল কোরআন মাহফিল ৩০ জানুয়ারি শীতার্ত মানুষের কল্যাণে স্টুডেন্ট ওয়েলফেয়ার সোসাইটির শীতবস্ত্র বিতরণ ‘বলাই-সজীব ভাই-ভাই, এক দড়িতে ফাঁসি চাই’ কুশিয়ারা পাড়ের ঐতিহ্যবাহী পৌষ সংক্রান্তির মাছের মেলা অদক্ষ চালক কেড়ে নিল প্রাণ; নতুন বই নিয়ে বাড়ি ফিরা হল না খাদিজার কুলাউড়ায় ঐতিহ্যবাহী ‘মাছের মেলা’ নবনির্বাচিত কৃষিমন্ত্রীকে ফুলেল শুভেচ্ছা দিয়েছে জেলা আওয়ামিলীগ শ্রীমঙ্গলে হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের উদ্যোগে ত্রিপুরা পল্লীতে শীতবস্ত্র বিতরন

মনোনয়নে শাহাব উদ্দিনের ডাবল হ্যাট্রিক

দেলাওয়ার হোসেন, জুড়ী
প্রকাশিত: মঙ্গলবার, ২৮ নভেম্বর, ২০২৩, ৬:৫১ পূর্বাহ্ণ
মনোনয়নে শাহাব উদ্দিনের ডাবল হ্যাট্রিক

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে মৌলভীবাজার-১ (জুড়ী-বড়লেখা) আসনে শাহাব উদ্দিনেই আবারও ভরসা রাখল আওয়ামীলীগ।

রবিবার (২৬ নভেম্বর) আওয়ামীলীগের দলীয় কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে আনুষ্ঠানিকভাবে ৩০০ আসনে চূড়ান্ত প্রার্থীর তালিকা প্রকাশ করেন দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। ওবায়দুল কাদের সংবাদ সম্মেলনে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে মৌলভীবাজার-১ আসনে নৌকার প্রার্থী হিসেবে মোঃ শাহাব উদ্দিন এমপির নাম ঘোষণা করেন।

এ নিয়ে টানা ৬ বার আওয়ামী লীগের নৌকা মার্কার মনোনয়ন পেয়ে ‘মনোনয়নের ডাবল হ্যাট্রিক’ করলেন শাহাব উদ্দিন। সর্বপ্রথম মনোনয়ন পান ১৯৯৬ সালে সপ্তম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে। সেই নির্বাচনে বিএনপির হ্যাভিওয়েট প্রার্থী সাবেক প্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট এবাদুর রহমান চৌধুরীকে পরাজিত করে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন।

তারপর দ্বিতীয়বারের মতো মনোনয়ন পান ২০০১ সালে অষ্টম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে৷ তবে সেই নির্বাচনে পরাজিত হন তিনি। বিএনপির প্রার্থী অ্যাডভোকেট এবাদুর রহমানের কাছে পরাজিত হন।

২০০৮ সালে নবম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নৌকা প্রতীক পেয়ে মনোনয়নের হ্যাট্রিক করেন। সেই নির্বাচনে বিএনপির হ্যাভিওয়েট প্রার্থী অ্যাডভোকেট এবাদুর রহমানকে আবারও পরাজিত করে দ্বিতীয়বারের মতো সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন।

২০১৪ সালে দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে চতুর্থবারের মতো নৌকা পান শাহাব উদ্দিন। সেই নির্বাচনেও বিজয়ী হন। দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে তৃতীয়বারের মতো নির্বাচিত হয়ে সংসদের হুইপের দায়িত্ব পান।

তারপর ২০১৮ সালে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে পঞ্চমবারের মতো আওয়ামিলীগের নৌকা মার্কার প্রার্থী মনোনীত হন তিনি। সেই নির্বাচনে ঐক্যফ্রন্টের প্রার্থী ধানের শীষ নিয়ে নির্বাচন করা বিএনপির নাসির উদ্দিন আহমেদ মিঠুকে পরাজিত করে চতুর্থবারের মতো সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। তারপর পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয়ের মাননীয় মন্ত্রীর দায়িত্ব পান।

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে মৌলভীবাজার-১ আসনে কে মনোনীত হচ্ছেন এই প্রশ্ন ঘুরছিল এই আসনের জনগনের মুখে মুখে। কেননা এবার নৌকার আরেক দাবীদার ছিলেন বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক এসএম জাকির হোসেন। শেষ পর্যন্ত দলের মনোনয়ন বোর্ড প্রবীণ রাজনীতিবিদ শাহাব উদ্দিনে আবারও আস্থা রাখবেন না-কি তরুণ ও মেধাবী এসএম জাকির হোসেনকে বেছে নিবেন সেই আলোচনা চলছিল সর্ব মহলে। কিন্তু সব জল্পনা-কল্পনার অবসান ঘটিয়ে ডাবল হ্যাট্রিক করে নৌকার মাঝি হলেন সেই শাহাব উদ্দিন-ই।

বর্তমান সাংসদ ও পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী শাহাব উদ্দিন এমপি মনোনীত হওয়ার পর জুড়ী-বড়লেখায় আনন্দ মিছিল করেছেন আওয়ামীলীগ ও অঙ্গ সংগঠনের নেতা-কর্মীরা। আবারও নৌকা মার্কায় শাহাব উদ্দিনকে বিজয়ী করতে বদ্ধপরিকর তারা।

উল্লেখ্য, মৌলভীবাজার-১ আসনের সংসদ সদস্য শাহাব উদ্দিন এমপি ১৯৮৪ সালে বড়লেখা উপজেলার সদর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান হিসেবে জনপ্রতিনিধিত্ব শুরু করেন। সেই নির্বাচনের পর রাজনীতির মাঠে পেছন ফিরে তাকাতে হয় নি আর। একটানা ৩ বার ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ছিলেন তিনি৷ সে ধারাবাহিকতায় ১৯৯৬ সালে নৌকা মার্কা নিয়ে প্রথমবার সংসদ নির্বাচনে অংশগ্রহণ করে এমপি নির্বাচিত হন। সেখান থেকে হুইপ ও মন্ত্রীত্ব পাওয়া একজন সফল রাজনীতিবিদ শাহাব উদ্দিন এমপি।


আরও পড়ুন
Hexus IELTS